রোজ ২ কোয়া রসুনের উপকারিতা জানলে আপনি এখনই খাওয়া শুরু করবেন!

গরম গরম মাংস-ভাত! কি, শুনলেই কেমন জিভে জল আসে বলুন। আর মাংসকষা মানেই রসুন। রান্না বাদে রসুনের নানা গুনাগুণ সম্পর্কে আপনাদের জানা না থাকলে যেনে নিন। শরীরের নানা সমস্যায় রসুনের চেয়ে সহজলভ্য ঘরোয়া উপকরন আর দুটি নেই।

কাঁচা রসুন খাওয়া অনেকেই পছন্দ করে না, মুখে গন্ধ হওয়ার ভয়ে। কিন্তু এই কাঁচা রসুনের গন্ধের ভয়কে এড়িয়ে, প্রতিদিন নিয়ম করে ২ কোয়া রসুন যদি কেউ খায়, তাহলে সে নানাভাবে উপকৃত হবে। শরীরের জন্য কাঁচা রসুন খুবই উপকারি। ‘ইউনিভার্সিটি অফ হেলথ এন্ড মেডিক্যাল সায়েন্স’এর গবেষণার থেকে জানা গিয়েছে রসুনের উপকারিতা সম্পর্কে।

কিভাবে উপকৃত হওয়া যায়
নিয়মিত রসুন খেলে রক্তচাপ স্বাভাবিক থাকে। যাদের হাই প্রেসার আছে তারা প্রতিদিন ১ কোয়া রসুন খেলে তাদের রক্তচাপ স্বাভাবিক মাত্রায় থাকে। হৃদপিণ্ডের ব্যথা-জনিত সমস্যা থাকলে কাঁচা রসুন খুবই উপকারি এর জন্য। রসুন হৃদপিণ্ডের চলাচলের স্বাভাবিকতা বজায় রাখে। রসুন শরীরের অতিরিক্ত কোলেসটরেল কমায়। যার ফলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কম থাকে।

কাঁচা রসুন রোজ খেলে ক্যান্সার হবার সম্ভাবনা অনেক কমে যায়। কোলন ক্যান্সার, স্তন ক্যান্সার, গলব্লাডার ক্যান্সার, নানা প্রকার ক্যান্সার হবার সম্ভাবনা কম থাকে। কাঁচা রসুনকে ক্যান্সার প্রতিরোধক বলা যেতে পারে। এছাড়া ত্বকের সমস্যায় বিশেষ করে ব্রণও হলে সেই দাগ থেকে বাঁচতে রসুন মুখে লাগানো যায়।

চুলের সমস্যায় বর্তমানে অধিকাংশ মানুষ জর্জরিত। কম বয়সে চুল পরে যাচ্ছে। তাছাড়া চুলের অন্য সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে রসুন ব্যবহার করতে পারেন। চুলের পরিমান অনুযায়ী কাঁচা রসুনবাটা চুলে ঘণ্টাখানেক লাগিয়ে রাখুন। ঠাণ্ডা জলে চুলে স্যম্প করে নিন। সপ্তাহে দুবার করলে শীঘ্রই ফলাফল পাওয়া যায়।

পুড়ে যাওয়া বা ফোসকা পরলে রসুন ঘরোয়া ওষুধের কাজ করে। রান্না করতে করতে অনেক সময় বেখেয়ালে হাত পুড়ে যায় বা তেল ছিটে ফোসকা পরে। এরকম হলে এবার থেকে রসুন ব্যবহার করতে পারেন। চটপট ১-২ কোয়া রসুন থেতলে পোড়া জায়গাতে লাগান, ফোসকা পরবে না।

নতুন জুতো পরলে বেশীরভাগ সময় পায়ে ফোসকা পরে। ফোসকাতে রসুনের রস লাগিয়ে রাখলে আরাম পাওয়া যায়।

রসুনের বিভিন্ন গুণাবলী শরীরকে নানাভাবে উপকৃত করে থাকে। ফ্লু ও শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা দূর করতে রসুন সাহায্য করে। শরীরের নানা ব্যথা, মূলত গিট বাতের থেকে আরাম পেতে রসুনের ব্যবহার করা যায়। ফোঁড়া হলে তা থেকে নিরাময়ে রসুন কাজে লাগে। রসুন হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।

রসুন নানাভাবে উপকার করে ঠিকই। কিন্তু অনেকের আবার রসুনে অ্যালার্জি থাকে। তাই যাদের অ্যালার্জি আছে তারা রসুন ব্যবহার করার আগে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে নেবেন। বেশি রসুন খাওয়া ভালো না। শরীর গরম হয়ে যায়, মুকে গন্ধ ছড়ায়। রোজ ২ কোয়ার বেশি কাঁচা রসুন না খাওয়াই ভালো।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*