প্রেমিকাকে খুশি করতে গিয়ে গোটা বাড়ি জ্বালিয়ে ফেলল প্রেমিক

প্রেমিকাকে খুশি করতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেটা করতে গিয়ে গোটা বাড়ি জ্বালিয়ে ফেললেন প্রেমিক। ইংল্যান্ডের শেফিল্ডের ঘটনা। শেফিল্ডের অ্যাবেডাল এলাকায় নিজের ফ্ল্যাটের সব কিছু পুড়িয়ে ফেলেছেন অ্যালবার্ট নদ্রে নামের এক যুবক। নিজের ফ্ল্যাটে ১০০টি মোমবাতি জ্বালিয়ে ঘর সাজিয়েছিলেন তিনি।

তার পর গিয়েছিলেন প্রেমিকাকে অফিস থেকে আনতে। ভেবেছিলেন, ঘরে ঢুকেই তাঁর আয়োজন দেখে চমকে যাবে প্রেমিকা। কিন্তু ফিরে আসার পর প্রেমিকার সঙ্গে তিনি নিজেও চমকে যান। গোটা ফ্ল্যাট জ্বলেপুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে। প্রেমিকাও তাঁর কাণ্ডে অবাকই বটে!

দমকলের তিনটি ইউনিট ফ্ল্যাটের আগুন নিভিয়েছে। হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায় নাই। তবে তাঁর এই কাণ্ডে ভয়ানক বিপদ হতে পারত।

আপাতত প্রেমিকাকে খুশি করতে গিয়ে সর্বস্ব হারিয়ে বসে আছেন প্রেমিক অ্যালবার্ট। তবে তাতে তাঁর আফসোস নেই। তাঁর পুড়ে যাওয়া ফ্ল্যাটের একাধিক ছবি শেয়ার করেছে শেফিল্ডের দমকল বাহিনী। তারা সতর্কবার্তাও দিয়েছে।

ঘটনার বিবরণ দিয়ে বলা হয়েছে, বাড়িতে জ্বলন্ত কিছু রেখে কেউ যেন বাইরে না যান! তা হলে বড় বিপদ হতে পারে। দমকল বাহিনী লিখেছে, ”আপনারা কী দেখছেন এখানে!

এই জায়গায় একশোটি মোমবাতি থাকার কথা ছিল। এখানে রোম্যান্টিক বাতাবরণ তৈরির কথা ছিল। কিন্তু সেসব কিছুই হয়নি। ফ্ল্যাটের সব কিছু পুড়ে ছাই হয়েছে। এই ঘটনা আমাদের শিক্ষা দিয়ে গেল। কীভাবে মোমবাতি ব্যবহার করা উচিত সেই শিক্ষা।”

নেটিজেনরা অ্যালবার্টকে বোকা প্রেমিক আখ্যা দিয়েছে। তবে অ্যালবার্টের সেসবে ভ্রুক্ষেপ নেই। কারণ তাঁর প্রেমিকা তাঁকে বিয়ে করতে রাজি হয়েছে।

অ্যালবার্ট আয়োজন করেছিলেন সব কিছু। ভেবেছিলেন, রোম্যান্টিক আবহ তৈরি করে প্রেমিকাকে তাক লাগিয়ে দেবেন। তার পর তাঁকে বিয়ের প্রস্তাব দেবেন। কিন্তু সেসব কিছুই হয়নি। তবে প্রেমিকা তাঁর আয়োজনের কদর দিয়েছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*